1. admin@dailyoporadh.com : admin :
নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানকে চাপা দেওয়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লাবাহী গাড়ি, আসল চালক কে - দৈনিক অপরাধ
সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ১২:১২ পূর্বাহ্ন
সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ১২:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রোগী শনাক্তের হার বেড়ে ১০ শতাংশ ছাড়িয়েছে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন কিংবদন্তিতুল্য সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর মেঘাচ্ছন্ন আকাশ ও বৃষ্টির কারণে তাপমাত্রা কমতে পারে ঢাকার বাইরে সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছেন চট্টগ্রামে দেশে করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে প্রতিদিন আগামী শনিবার থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে ট্রেন লেনদেনের তালিকা তৈরি করেছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান কিউকম লিমিটেড ও তাদের পেমেন্ট গেটওয়ে প্রতিষ্ঠান ফস্টার করপোরেশন লিমিটেড করোনা সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় গণপরিবহনে যাত্রী চলাচল নিয়ন্ত্রণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পৌষের প্রায় শেষ, মাঘ আসি আসি করছে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী সব শিক্ষার্থীকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে করোনার টিকা দিতে হবে

নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানকে চাপা দেওয়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লাবাহী গাড়ি, আসল চালক কে

জয়িতা দাস
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ৫২ বার পঠিত

নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানকে চাপা দেওয়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লাবাহী গাড়িটি বরাদ্দ ছিল চালক ইরান মিয়ার নামে। কিন্তু তিনি অবৈধভাবে গাড়িটি চালাতে দেন হারুন মিয়া নামের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে। হারুন মিয়া এই গাড়ি চালাতে অংশীজন হিসেবে নিয়েছেন সংস্থার আরেক পরিচ্ছন্নতাকর্মী আবদুর রাজ্জাককে। এ ছাড়া করপোরেশনের বাইরের শ্রমিক হিসেবে রাসেল খান নামের এক যুবককে দিয়েও গাড়িটি চালানো হতো।

গত বুধবার দুপুরে গুলিস্তান এলাকায় নটর ডেম কলেজের ছাত্র নাঈম হাসানকে যখন চাপা দেওয়া হয়, তখন চালকের আসনে ছিলেন না মূল চালক ইরান মিয়া। পুলিশের দাবি, তখন গাড়িটি চালাচ্ছিলেন রাসেল খান। রাসেল খানকে চালকের আসনে বসিয়েছেন হারুন মিয়া।

নাঈম হাসানকে চাপা দেওয়ার সময় গাড়িতে চালকের আসনে ছিলেন হারুন মিয়া। এই দুর্ঘটনার পর হারুন মিয়া ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম এলাকায় চলে যান। তার ঘণ্টাখানেক পর সিটি করপোরেশনে এসে এক কর্মকর্তার কাছে ঘটনার বর্ণনা দেন।

ওই কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে শুক্রবার প্রথম আলোকে বলেন, শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়ার পর মুঠোফোনে তাঁকে ঘটনা জানিয়েছেন হারুন মিয়া। তখন এই কর্মকর্তা জানতে চান, গাড়ি কোথায়? পরে তাঁকে জানানো হয় ঘটনাস্থলেই গাড়ি রেখে তিনি পালিয়েছেন।

 

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd