1. admin@dailyoporadh.com : admin :
ওয়ার্নার–মার্শের ব্যাটে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়ার - দৈনিক অপরাধ
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই বৃষ্টির বাগড়া শুধু পাস করেই চাকরির পেছনে না ছুটে নিজেরা উদ্যোক্তা হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে করোনা সংক্রমিত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে, এ সময় রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৯৭ জন বাংলাদেশ ও ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে ডেমু ট্রেনের সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও চারজন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে কন্টেইনারবাহী কাভার্ড ভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন করোনার দুঃসময়ে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা সমুদ্রগামী জাহাজে বিনিয়োগের সুযোগ নিয়েছেন এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান আন্দোলন কর্মসূচি সীমিত অদম্য ইচ্ছার জোরেই এখন স্বপ্নের কাছাকাছি এসে পৌঁছেছেন শোভা রানী

ওয়ার্নার–মার্শের ব্যাটে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়ার

দৈনিক অপরাধ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩১ বার পঠিত

কেইন উইলিয়ামসন খেলেছিলেন দুর্দান্ত। ৪৮ বলে ৮৫ রানের অধিনায়কোচিত এক ইনিংসে নিউজিল্যান্ডকে এনে দিয়েছিলেন লড়াই করার মতো এক সংগ্রহ। কিন্তু দিন শেষে ডেভিড ওয়ার্নার আর মিচেল মার্শ প্রমাণ করে দিলেন কিউই অধিনায়কের ইনিংসটা যথেষ্ট ছিল না। অধিনায়ক একাই খেললেন, কিন্তু তাঁকে কেউই সেভাবে সঙ্গ দিতে পারলেন না। নিউজিল্যান্ডও সংগ্রহটাকে নিয়ে যেতে পারল না অস্ট্রেলিয়ার নাগালের বাইরে। ওয়ার্নার আর মার্শের একটা জুটিতেই কেল্লাফতে অস্ট্রেলিয়ার। বিশ্বকাপ ফাইনালকে ‘একপেশে’ বানিয়ে দুবাইয়ে নিজেদের টি-টোয়েন্টির নতুন চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ঘোষণা করল অস্ট্রেলিয়া। ৮ উইকেটে হেরে আরও একটি আইসিসি টুর্নামেন্টের ফাইনালে ব্যর্থ নিউজিল্যান্ড।

কিউইদের জন্য আক্ষেপ হতে পারে যে কারওরই। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে টানা তিনটি ফাইনালে পরাজিতের দলেই তারা। ২০১৫ সালে এই অস্ট্রেলিয়ার কাছে আত্মসমর্পণ করেই নিউজিল্যান্ডের ফাইনাল হারের শুরু। এরপর দুই বছর আগে লর্ডসের সেই নাটকীয় ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অল্পের জন্য স্বপ্নভঙ্গের বেদনা। মাঝখানে টেস্টের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলেও এবার টি-টোয়েন্টির শিরোপাটা অধরাই হয়ে রইল তাদের। দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলে ফাইনালে উঠে আসা কেইন উইলিয়ামসনের দলের পক্ষে বাজি ধরার লোকের অভাব ছিল না। কিন্তু ফাইনালে অধিনায়ক ছাড়া, নিউজিল্যান্ড দলে বলার মতো কোনো পারফরম্যান্সই নেই।

১৭২ রানের পুঁজি নিয়েও এত দিন ধরে দুর্দান্ত বোলিংয়ে ক্রিকেট দুনিয়ার মনোযোগ কাড়া ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদিরা ওয়ার্নার-মার্শদের সামনে হয়ে রইলেন অসহায়ই। রীতিমতো ব্যাট হাতে রাজত্ব করেই নিউজিল্যান্ডকে ওড়ালেন অস্ট্রেলীয় ব্যাটসম্যানরা—ডেভিড ওয়ার্নার আর মিচেল মার্শ। ওয়ার্নার শুরু থেকেই ছিলেন আক্রমণাত্মক—চার বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় করলেন ৩৮ বলে ৫৩। মার্শ ৬ চার ও ৪ ছক্কায় ৫০ বলে ৭৭ করে অজেয় শেষ পর্যন্ত।
আগে ব্যাটিং করে নিউজিল্যান্ডের তোলা ১৭২ রানের সংগ্রহটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। নিউজিল্যান্ডের ফিল্ডিং-বোলিং বিবেচনায় অস্ট্রেলিয়ার জন্য রান তাড়াটা খুব সহজ ছিল না। তবে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে পাকিস্তানের ১৭৬ রানের সংগ্রহকে তারা যেভাবে তাড়া করেছিল, তাতে আত্মবিশ্বাসের অভাব থাকার কথা নয়। আজ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যেন অস্ট্রেলিয়া শুরু করল ঠিক সেখান থেকেই, পাকিস্তানের বিপক্ষে তারা শেষ করেছিল যেখানে। পার্থক্য কেবল কুশীলবে। পাকিস্তানের বিপক্ষে সেমিফাইনাল অস্ট্রেলিয়াকে জেতানোর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন মার্কাস স্টয়নিস ও ম্যাথু ওয়েড। আজ সেটি শুরু থেকেই নিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। মাঝখানে দলীয় ১৫ রানে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের ফেরাটা যদি ধাক্কা হয়, তাহলে সেই ধাক্কা সামলাতে একবিন্দু সমস্যা হয়নি অস্ট্রেলীয়দের। ওয়ার্নারের সঙ্গী হলেন মিচেল মার্শ।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd