1. admin@dailyoporadh.com : admin :
জলাশয়গুলোর অবস্থা সম্পর্কে ও দূষণকারী কারখানার বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে - দৈনিক অপরাধ
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই বৃষ্টির বাগড়া শুধু পাস করেই চাকরির পেছনে না ছুটে নিজেরা উদ্যোক্তা হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে করোনা সংক্রমিত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে, এ সময় রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৯৭ জন বাংলাদেশ ও ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে ডেমু ট্রেনের সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও চারজন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে কন্টেইনারবাহী কাভার্ড ভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন করোনার দুঃসময়ে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা সমুদ্রগামী জাহাজে বিনিয়োগের সুযোগ নিয়েছেন এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান আন্দোলন কর্মসূচি সীমিত অদম্য ইচ্ছার জোরেই এখন স্বপ্নের কাছাকাছি এসে পৌঁছেছেন শোভা রানী

জলাশয়গুলোর অবস্থা সম্পর্কে ও দূষণকারী কারখানার বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে

দৈনিক অপরাধ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৯ বার পঠিত

সাভার উপজেলায় অবস্থিত বাগাইল, ধোলাই ও পাকুরিয়া বিল এবং কর্ণপাড়া খাল রক্ষার নির্দেশ দিয়ে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। ১০ বছর আগে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) করা এক রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মুহাম্মদ মাহবুব-উল ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।
জলাশয়গুলোর অবস্থা সম্পর্কে ও দূষণকারী কারখানার বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা জানিয়ে প্রতি ছয় মাস পরপর আদালতে প্রতিবেদন দিতে পরিবেশ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ওই চার জলাশয়ে কারখানার বিষাক্ত ও ক্ষতিকারক বর্জ্য নিঃসরণ বন্ধে ও জলাশয়গুলো রক্ষার নির্দেশনা চেয়ে বেলা ২০১১ সালে রিটটি করে। এর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ওই বছরের ৭ এপ্রিল হাইকোর্ট রুলসহ আদেশ দেন।
রুলে কারখানার বিষাক্ত ও ক্ষতিকারক বর্জ্য থেকে চার জলাশয় সুরক্ষায় কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং স্থাপনা নির্মাণের মাধ্যমে জলাশয়ে স্বাভাবিক গতিপথে প্রতিবন্ধকতা রোধে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে তা যথাযথ ঘোষণা করে আজ রায় দেওয়া হয়। বিষয়টি চলমান তদারকিতে থাকবে বলেছেন আদালত। আদালত বলেছেন, পরিবেশ অধিদপ্তর যে যুক্তি দিয়েছে, তা বিবেচনায় নেওয়ার যৌক্তিকতা দেখা যাচ্ছে না।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান ও সাঈদ আহমেদ কবীর। পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মুনতাসীর উদ্দিন আহমেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ওয়ায়েস আল হারুনী।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd