1. admin@dailyoporadh.com : admin :
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছয় দিন ধরে করোনায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি হননি - দৈনিক অপরাধ
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাম্প্রদায়িক শক্তি মনে করে, ঠিক একাত্তরের মতো টার্গেট করে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা চালিয়ে তাদের দেশ থেকে বের করে দেওয়া যায় কক্সবাজারের উখিয়ার থাইনখালী রোহিঙ্গা শিবিরে দুটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় সাত জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন দ্বিতীয় ধাপে সারা দেশে ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) নির্বাচন হতে যাচ্ছে কক্সবাজারে আটক হওয়া ব্যক্তিই কুমিল্লার ইকবাল হোসেন, পুলিশ সুপার (এসপি) উজানের পাহাড়ি ঢল আর দুই দিনের বর্ষণে লালমনিরহাটে তিস্তার পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে দুর্গাপূজার অষ্টমীর দিন কুমিল্লা নগরের নানুয়া দিঘির উত্তর পাড়ের অস্থায়ী পূজামণ্ডপে ইকবাল হোসেন (৩৫) পবিত্র কোরআন রেখেছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতার জন্যই দেশে সাম্প্রদায়িকতার বিস্তার ঘটছে বলে মনে করেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলিউড তারকা শাহরুখ খানের বাড়িতে তল্লাশি চালাতে ঢুকেছেন ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর (এনসিবি) কর্মকর্তারা দেশের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে, ক্রমান্বয়ে দেশের সব মানুষই টিকা পাবে দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ মোবাইল অপারেটর রবি আজিয়াটা তাদের সব মোবাইল নেটওয়ার্ক টাওয়ার বিক্রি করে দিচ্ছে

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছয় দিন ধরে করোনায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি হননি

দৈনিক অপরাধ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৫ বার পঠিত

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছয় দিন ধরে করোনায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি হননি। এ সময় বিভাগে রোগী শনাক্ত হলেও অবস্থা গুরুতর না হওয়ায় তাঁরা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এতে স্বস্তির কথা জানিয়েছেন হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সরা।

মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ নূরুন্নবী লাইজু আজ রোববার জানান, ৭১ শয্যার করোনা ইউনিটে ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে কোনো করোনা রোগী ভর্তি হননি। তাই করোনা ওয়ার্ডে কর্মরত চিকিৎসক-নার্সদের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে।

অধ্যক্ষ বলেন, কিছুদিন আগেও রোগী ছিলেন ৫০ জনের বেশি। আর অক্সিজেন পেতে হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলারও প্রয়োজন ছিল। কিন্তু এখন কিছুই লাগছে না।

রংপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে আজ পর্যন্ত এক সপ্তাহে রংপুর জেলায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৫৯। গত এক মাস আগেও জেলায় এক দিনে শতাধিক রোগী শনাক্তের ঘটনা ঘটেছিল। এখন যাঁরা নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছেন, তাঁরা কম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছেন বলে বাড়িতেই আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে চিকিৎসা নিয়েছেন নগরের সাগরপাড়া এলাকার বাসিন্দা মাসুদ খান। তিনি বলেন, ‘করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতেই ছিলাম। জ্বর,সর্দি–কাশি ছিল। হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার প্রয়োজন মনে করিনি। এখন সুস্থ।’

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার মাহমুদ হোসেন বলেন, কয়েক দিন আগেও দিন-রাতে করোনা রোগীদের সেবায় অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে দৌড়াদৌড়ি করতে হয়েছে। এখন করতে হচ্ছে না।

নাসরিন আক্তার নামের এক নার্স বলেন, ‘করোনো রোগীদের সেবা দিতে কী যে কষ্ট গেছে। খাওয়া–দাওয়ারও ঠিক ছিল না। এরপর নিজের করোনায় আক্রান্ত হওয়া নিয়ে অনেক বেশি ভয় ছিল। তবে এখনো যে ভয় নেই তা নয়।’

আজ দুপুরে রংপুর মেডিকেলে সরেজমিন দেখা যায়, সাধারণ রোগী ও স্বজনদের মধ্যেও করোনার শঙ্কা অনেকটা কমে গেলেও সবার মুখে মাস্ক। স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলতে দেখা যায় সবাইকে।

রংপুর জেলা প্রশাসক ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আসিব আহসান বলেছেন, করোনার সংক্রমণ কমে গেলেও সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। জনসচেতনতার কাজ অব্যাহত রাখতে হবে। চিকিৎসক–নার্সরা সব সময় কাজ করেছেন। তা এখনো অব্যাহত আছে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd