1. admin@dailyoporadh.com : admin :
বাংলাদেশে ভবিষ্যতে ভ্যাকসিনের অভাব থাকবে না; যদি সবাই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক - দৈনিক অপরাধ
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাম্প্রদায়িক শক্তি মনে করে, ঠিক একাত্তরের মতো টার্গেট করে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা চালিয়ে তাদের দেশ থেকে বের করে দেওয়া যায় কক্সবাজারের উখিয়ার থাইনখালী রোহিঙ্গা শিবিরে দুটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় সাত জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন দ্বিতীয় ধাপে সারা দেশে ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) নির্বাচন হতে যাচ্ছে কক্সবাজারে আটক হওয়া ব্যক্তিই কুমিল্লার ইকবাল হোসেন, পুলিশ সুপার (এসপি) উজানের পাহাড়ি ঢল আর দুই দিনের বর্ষণে লালমনিরহাটে তিস্তার পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে দুর্গাপূজার অষ্টমীর দিন কুমিল্লা নগরের নানুয়া দিঘির উত্তর পাড়ের অস্থায়ী পূজামণ্ডপে ইকবাল হোসেন (৩৫) পবিত্র কোরআন রেখেছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতার জন্যই দেশে সাম্প্রদায়িকতার বিস্তার ঘটছে বলে মনে করেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলিউড তারকা শাহরুখ খানের বাড়িতে তল্লাশি চালাতে ঢুকেছেন ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর (এনসিবি) কর্মকর্তারা দেশের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে, ক্রমান্বয়ে দেশের সব মানুষই টিকা পাবে দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ মোবাইল অপারেটর রবি আজিয়াটা তাদের সব মোবাইল নেটওয়ার্ক টাওয়ার বিক্রি করে দিচ্ছে

বাংলাদেশে ভবিষ্যতে ভ্যাকসিনের অভাব থাকবে না; যদি সবাই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

জুয়েল দাস।
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৪ বার পঠিত

আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে দেশের সাত থেকে আট কোটি লোককে টিকা দেওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

আজ স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রস্তাব অনুযায়ী, চীনের সিনোফার্ম ও সিনোভ্যাকের মোট সাড়ে ১০ কোটি ডোজ টিকা কেনা হচ্ছে। এর বাইরে কোভ্যাক্সের সহায়তার আওতায় ৬ কোটি ৮০ লাখ ডোজ টিকা বিনা মূল্যে পাওয়া যাবে। সেটাও চলমান।

মন্ত্রী আরও বলেন, ওই সাড়ে ১০ কোটি ডোজ টিকা ভর্তুকি রেটে কম দামে কেনার প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করে পুরো প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে। সেখানে আছে সিনোফার্মের ৩ কোটি এবং সাড়ে ৭ কোটি সিনোভ্যাক। মোট সাড়ে ১০ কোটি ডোজ টিকা কেনা হবে। সেটার অর্ডার দেওয়া হয়ে গেছে।

টিকার বিভিন্ন তথ্য উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘যেভাবে আমরা ভ্যাকসিনের অর্ডার দিয়েছি, আর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যেভাবে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তা হলে বাংলাদেশে ভবিষ্যতে ভ্যাকসিনের খুব একটা অভাব থাকবে না; যদি সবাই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে।

আমরা যদি ১৬ কোটি টিকা পেয়ে যাই, তাহলে ৮ কোটি লোককে টিকা দিতে পারব। এই টিকাগুলো ডিসেম্বরের মধ্যেই আসার কথা। আমরা মনে করি, আগামী জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারির মধ্যে দেশের সাত থেকে আট কোটি লোককে টিকা দিতে পারব।’

এ মুহূর্তে গণটিকার কার্যক্রম করা হচ্ছে না বলে জানান মন্ত্রী। কারণ, সে পরিমাণ টিকা হাতে নেই। এ ছাড়া ‘গণ’ কথাটা হয়তো ভবিষ্যতে আর ব্যবহার করা হবে না। হাতে যখন যতটুকু টিকা আসবে, সেই টিকা যত মানুষকে দেওয়া যাবে, তত মানুষের কাছে বার্তা যাবে। তাঁরাই টিকা দিতে আসবেন।

জাহিদ মালেক জানান, করোনার টিকার প্রথম ডোজের পর দ্বিতীয় ডোজের সময় ১৫ বা ২০ দিন করা যায় কি না, প্রধানমন্ত্রী তা দেখতে বলেছেন। যদি সম্ভব হয়, সেটা করা হবে। বিভিন্ন দেশে ১৫ দিনের মধ্যেই দ্বিতীয় ডোজ দিচ্ছে। এখন কারিগরি কমিটি ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে আলাপ করে সে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এবং তা টিকাপ্রাপ্তি সাপেক্ষে। কারখানার শ্রমিকদের টিকা দেওয়ার দাবি উঠেছে। টিকা পেলে সব শ্রমিককে দেওয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd