1. admin@dailyoporadh.com : admin :
ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম চলছে - দৈনিক অপরাধ
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৮ অপরাহ্ন
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কক্সবাজারের উখিয়ার থাইনখালী রোহিঙ্গা শিবিরে দুটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় সাত জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন দ্বিতীয় ধাপে সারা দেশে ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) নির্বাচন হতে যাচ্ছে কক্সবাজারে আটক হওয়া ব্যক্তিই কুমিল্লার ইকবাল হোসেন, পুলিশ সুপার (এসপি) উজানের পাহাড়ি ঢল আর দুই দিনের বর্ষণে লালমনিরহাটে তিস্তার পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে দুর্গাপূজার অষ্টমীর দিন কুমিল্লা নগরের নানুয়া দিঘির উত্তর পাড়ের অস্থায়ী পূজামণ্ডপে ইকবাল হোসেন (৩৫) পবিত্র কোরআন রেখেছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতার জন্যই দেশে সাম্প্রদায়িকতার বিস্তার ঘটছে বলে মনে করেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলিউড তারকা শাহরুখ খানের বাড়িতে তল্লাশি চালাতে ঢুকেছেন ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর (এনসিবি) কর্মকর্তারা দেশের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে, ক্রমান্বয়ে দেশের সব মানুষই টিকা পাবে দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ মোবাইল অপারেটর রবি আজিয়াটা তাদের সব মোবাইল নেটওয়ার্ক টাওয়ার বিক্রি করে দিচ্ছে রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে, পরে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম চলছে

জুয়েল দাস।
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২২ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৭ বার পঠিত

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম চলছে সনাতন পদ্ধতিতে। রাজধানীর মাতুয়াইল ও সাভারের আমিনবাজারে অবস্থিত দুই ল্যান্ডফিল্ডের বর্জ্য ধারণক্ষমতাও শেষ পর্যায়ে। এ পরিস্থিতিতে আধুনিক ও পরিবেশসম্মত বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য ১৫ বছর মেয়াদি মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন করে দুই সিটি করপোরেশন। এতে সমন্বিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনার কথা বলা হয়।

দুই বছর আগে এ খসড়া বর্জ্য ব্যবস্থাপনা মহাপরিকল্পনার অনুমোদন দিয়েছে দুই সিটি করপোরেশন। চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য ২০১৯ সালের নভেম্বরে তা স্থানীয় সরকার বিভাগে পাঠানো হয়। প্রায় ২২ মাস পেরোলেও মহাপরিকল্পনার বিষয়ে সিদ্ধান্ত বা মতামত জানায়নি স্থানীয় সরকার বিভাগ।

তবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ইতিমধ্যে নিজেদের মহাপরিকল্পনা থেকে সরে এসেছে। মহাপরিকল্পনায় বলা হয়েছিল, বর্জ্য থেকে কয়েক ধরনের পণ্য উৎপাদন করা হবে। বর্জ্যের ধরন অনুযায়ী বায়োগ্যাস, কম্পোস্ট সার, রিসাইকেল, কনস্ট্রাকশন বা নির্মাণবর্জ্যের পুনর্ব্যবহার এবং বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে। কিন্তু ডিএনসিসি কর্তৃপক্ষ সমন্বিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা থেকে সরে এসে বর্জ্য পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের উদ্যোগ নিয়েছে।

দুই সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, দুই সিটির মহাপরিকল্পনা একই ধরনের। এখন উত্তর সিটি করপোরেশন মহাপরিকল্পনা থেকে সরে যাওয়ায় জটিলতা তৈরি হয়েছে। পরিবেশগত ও অর্থনৈতিক সম্ভাব্যতা যাচাই ছাড়াই ডিএনসিসির বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রকল্পটি নেওয়া হয়েছে। দক্ষিণ সিটি করপোরেশন মহাপরিকল্পনা অনুসরণ করছে। এ অবস্থায় স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে শুধু দক্ষিণ সিটির মহাপরিকল্পনা অনুমোদন দিলে প্রশ্ন উঠতে পারে বলে পুরো প্রক্রিয়াই থমকে গেছে।
বর্তমান কার্যক্রম

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে এখন বর্জ্য উৎপাদন হচ্ছে, পৃথক্‌করণ না করেই যতটুকু পারা যাচ্ছে প্রাথমিকভাবে সংগ্রহ করা হচ্ছে। তা ময়লা রাখার ঘর (সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশন) বা এলাকাভিত্তিক ময়লার কনটেইনারে নিয়ে রাখা হচ্ছে। সেখান থেকে ল্যান্ডফিল্ডে নিয়ে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। সনাতন এ বর্জ্য ব্যবস্থাপনা পদ্ধতিতে পরিবেশগত দিকটি উপেক্ষিত থাকে। এটি নাগরিকদের স্বাস্থ্য ও জীবনযাত্রার জন্য হুমকি সৃষ্টি করে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd