1. admin@dailyoporadh.com : admin :
নিজের ছয় বছরের মেয়েকে বিষ খাইয়ে মেরে মায়ের আত্মহত্যা - দৈনিক অপরাধ
রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন
রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ইকবাল কার প্ররোচনায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখেছিলেন, তা বলেননি বাংলাদেশের সঙ্গে তুরস্কের বাণিজ্যিক সম্পর্ক করোনা মহামারির মধ্যেও খুব একটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন তুরস্কের রাষ্ট্রদূত ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বাংলাদেশকে পৃথিবীর ‘নাম্বার ওয়ান’ বা সেরা উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন করোনা সংক্রমণে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে, এ সময় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ২৭৮ জন। চেক জালিয়াতির মাধ্যমে যশোর শিক্ষা বোর্ডের ব্যাংক হিসাব থেকে আরও আড়াই কোটি টাকা আত্মসাত সারা দেশে প্রতিমা, পূজামণ্ডপ, মন্দিরে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে গণ–অনশন, গণ–অবস্থান ও বিক্ষোভ মিছিল করছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা উচ্চমাধ্যমিক বা এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের জন্য আবার সুযোগ দিয়েছে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড সাম্প্রদায়িক শক্তি মনে করে, ঠিক একাত্তরের মতো টার্গেট করে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা চালিয়ে তাদের দেশ থেকে বের করে দেওয়া যায় কক্সবাজারের উখিয়ার থাইনখালী রোহিঙ্গা শিবিরে দুটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় সাত জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন দ্বিতীয় ধাপে সারা দেশে ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) নির্বাচন হতে যাচ্ছে

নিজের ছয় বছরের মেয়েকে বিষ খাইয়ে মেরে মায়ের আত্মহত্যা

জুয়েল দাস।
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৮ আগস্ট, ২০২১
  • ৪৪ বার পঠিত

যশোরের শার্শা উপজেলার লক্ষ্মণপুর ইউনিয়নের শুড়ারঘোপ গ্রামে গতকাল মঙ্গলবার রাতে মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা, নিজের ছয় বছরের মেয়েকে বিষ খাইয়ে মেরে মা আত্মহত্যা করেছেন। পারিবারিক বিরোধের জেরে এমনটা হতে পারে।

মৃত দুজন হলেন মা শুড়ারঘোপ গ্রামের সিরাজুল ইসলামের মেয়ে সুমি খাতুন (৩০) ও তাঁর মেয়ে আঁখি মণি (৬)।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তিন বছর আগে বিবাহবিচ্ছেদের পর সুমি খাতুন তাঁর মেয়ে আঁখি মণিকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন। এ নিয়ে মায়ের সঙ্গে সুমির প্রতিনিয়ত ঝামেলা হতো। গতকাল মঙ্গলবারও মা-মেয়ের ঝগড়া হয়।
লক্ষ্মণপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মোমিনুল হোসেন বলেন, সুমির বিবাহবিচ্ছেদ হওয়ার পর থেকে মেয়েকে নিয়ে তিনি বাবার বাড়িতে থাকতেন। সন্ধ্যায় মায়ের সঙ্গে ঝগড়ার পর রাত আটটার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে সুমি প্রথমে মেয়েকে বিষ দেন। পরে নিজে বিষপান করেন। স্বজন ও এলাকার লোকজন মা ও মেয়েকে উদ্ধার করে প্রথমে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানকার চিকিৎসক আঁখি মণিকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত নয়টার দিকে সুমি খাতুনও মারা যান। মরদেহ দুটি যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে আছে।

যশোর পুলিশের মুখপাত্র গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রূপন কুমার সরকার বলেন, পারিবারিক কলহ ও মায়ের ওপর অভিমান থেকে মেয়েকে মেরে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ দৈনিক অপরাধ ©
A Sister Concern of Prachi 2020 Ltd